TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

এখানে লিখি না এর মানে এই নয় ভুলেই গেছি!

অনেক দিন ধরে এখানে লিখি না। এমনটা নয় যে মারাত্মক ব্যাস্ত ছিলাম, হ্যাঁ কিছুটা ছিলাম বৈকি। কিন্তু ঐযে একটা কথা আছে না, “আসলে ব্যাস্ততা বলে কিছু নেই, সবই প্রাধান্যের খেলা” — তো আসলে প্রাধান্য কমে গেছিলো। আসলে লাইফে সবকিছু এলোমেলো চলছে, তাই গোছাতে পারছিলাম না। ভালো করেই তো জানেন, “Life Can’t be Planned” — দেখুন কপাল, মন খারাপ থাকলে আর এলোমেলোতে থাকার সময়ই এখানে লিখবো বলে ব্লগটা সেটআপ করেছিলাম, কিন্তু সেটাই করতে পারি নি। বরং না পাওয়ার কথা চিন্তা করে সময় গুলো নষ্ট করেছি।

যাই হোক, ভাবলাম কিছু না কিছু তো লিখবোই এখন থেকে। বাস্তব লাইফে তেমন কোন বন্ধু বান্ধব নেই। সময় আর সিগারেট থাকলে নাকি বন্ধুর অভাব হয় না, লাইফে সকল সময় অন্য কাউকে দিয়েছি আর কাজকে, আর সিগারেট এখনো খাওয়া শিখি নাই। তাই বন্ধুর সংখ্যা একেবারে শূন্যের কোঠায়! এখন কিছুটা ফ্রি সময় আছে হাতে কিন্তু সেটা নতুন করে কোন বন্ধুকে দেওয়ার সময় নেই, বর্তমান ফাঁকা সময় গুলো অতীত রি- কল করতেই শেষ হয়ে যায় (যদিও এটা বুদ্ধি মানের কাজ নয়)।

কিন্তু কাউকে তো নিজের কথা গুলো বলতেই হবে, বন্ধু যখন কেউই নেই তো ব্লগই না হয় ভালো। কেউ পড়ুক আর না পড়ুক অন্তত প্রকাশ তো করতে পারছি! এটারই কেন যেন অনেক মূল্য রাখে আমার কাছে এখন। খুব বেশি চাইই নি কখনো, বাট যতোটুকুই চেয়েছি পাই ও নি তেমন! তাই লাইফ থেকে আর কিছুই চাইনা। জাস্ট বেঁচে থাকার কারণ খুঁজছি!

যাইহোক, (ব্লগকে বলছি) আর এখন থেকে আপডেটেড না হয়ে পরে থাকতে হবে না তোমাকে! দেখা যাক তুমি আর আমি মিলে ভালো বন্ধুত্ব করতে পারি কিনা! 🙂

লেখকের সম্পর্কে

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!

Add comment

TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!