TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

যে জিনিস গুলো তাৎক্ষণিক মেজাজটা গরম করে দেয়!

কিছু ছবি শেয়ার করলাম, যেগুলো দৈনন্দিন জীবনে প্রায়ই ঘটে থাকে, আর তাৎক্ষণিক মেজাজটা যায় বিগড়ে!


১. যতো যত্নেই রাখো না কেন, এই জিনিস প্যাচ লাগবেই।

২. যখনই এক গ্লাস থেকে আরেক গ্লাসে পানি ঢালবো বা বোতল থেকে গ্লাসে, আমার সাথে সর্বদায় এমন হয়।

৩. কেন? শুধু পিন্টারেস্ট ব্রাউজ করার জন্য কেনই বা লগইন করতে হবে? যদিও আমার নেটওয়ার্ক থেকে এই সাইটে আর যাওয়াই যায় না! মনে হয় জব্বার কাকু এটাকেও দুষ্ট সাইট মনে করে ব্লক করে দিয়েছে।

৪. শীত ছাড়া তেমন সেদ্ধ ডিম খাই না। আর যখনই সেদ্ধ ডিম ছিলতে যাই, এটা ঘটে 😠 অথচ রাস্তার পাশের ডিমের দোকান গুলোতে দেখি ১ সেকেন্ডে ডিম ছিলে তাও ৯৯% পারফেকশনের সাথে!

৫. কাঁচি নেই বলেই তো কাঁচি কিনছি নাকি? এখন এরে কাটমু কেমনে?

৬. হাতে শ্যাম্পু আর ব্রাশে টুথপেস্ট নেওয়ার সময় নিয়মিত নাটক!

৭. বাংলাদেশে সব পাওয়া যায় ব্রো; ফেসবুক চিপস, নোকিয়া স্যান্ডেল, মটুপাতলু ব্যাগ, পাখি ড্রেস — আরো কতো কিরে ভাই, দুই চারটা আপনিও কমেন্টে বলে যান…

৮. কিছু ছেলেরা প্যান্ট এতো নিচে পড়ে, মনে হয় হোগার চিপা দেখানোর জন্যই প্যান্ট পড়েছে…

৯. কিছু কিছু কুত্তার বাচ্চা নিষেধ করা সত্বেও বিড়ি অফ করতে চায় না। আরে ভাই বিড়ি খাবি সেটা তোর পার্সোনাল চয়েজ, তাই বলে পাবলিক যানবাহন বা পাবলিক প্লেসে? আরেকজনের সমস্যা দেখবি না?

১০. কোথাও যাবো তাড়াহুড়া করে, সেটার আর অবস্থা থাকে? নাও থাকো এবার হুদাই বসে।

১১. আধ ঘন্টা করে চেষ্টা করেও পাসওয়ার্ড মনে হলো না, তারপরে রিসেট করতে গিয়ে এই অবস্থা…

১২. এমনিতে নেট সেই ফাস্ট, কিন্তু যখনই কাউকে কিছু দেখাতে চাইবো…


আর পারছি না, আর এই মুহূর্তে মাথায় কিছু আসছে না।

লেখকের সম্পর্কে

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!

1 comment

TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!