TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

১০/০৫/২০১৯ 😔

আজকের দিনে সবচাইতে খুশি থাকতে পারতাম, বহু বছর কল্পনা করেছি সুখের জন্য, অন্তত এই দিনে। জীবনের সামনের দিন গুলোতেও আজকের দিনে খুশির স্বপ্ন দেখতাম। হাসি মুখ খুঁজতাম, কিন্তু আমার থেকে সুখ/খুশি কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

আমি কখনোই এমন ছিলাম না, আমাকে বানানো হয়েছে। আমাকে বঞ্চিত করা হয়েছে। ইউজ করা কনডমের মতো ফেলে দেওয়া হয়েছে, ট্রাস হিসেবে ফ্ল্যাশ করা হয়েছে।

আজ শুক্রবার, এই শুক্রবার ৭ বছর পর কেবল একবার আসে। মনে আছে স্পষ্ট, আজকের দিনে ৭ বছর আগে কতটা কেঁদেছিলাম। ছোট ছিলাম তো…

আরে আমি তো আমার প্রাইভেট টিউশনি স্যার জব পেয়েছে বলে চলে যাবে সেটা না সহ্য করতে পেরে কেঁদে বন্যা ভাসিয়েছিলাম। স্যার বুকে টেনে বলেছিলেন “এতটা ভালোবাসো আমায়?” অন্তত সে তো উপলব্ধি করতে পেরেছিল। বাকিদের তো সেই ক্ষমতাও নেই।

যাই হোক, খুব বেশি বলার মতো নেই, শব্দ পাচ্ছি না, হয়তো বা শব্দ হয় ও না এই অসুখের। আবার নতুন কান্নার অপেক্ষায় থাকলাম, নতুন বছরের এই দিনের অপেক্ষায় থাকলাম, যতক্ষণ বেঁচে আছি, যতোদিন!

লেখকের সম্পর্কে

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!

Add comment

TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে প্রযুক্তি ব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

ঠিক যখনই আমি জীবনের অর্থ খুঁজে পেলাম, সে তা বদলে দিল!