TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

কয়েক বাক্যে আমার ২০১৮

অনেকটা এলোমেলো ভাবেই শুরু করেছিলাম ২০১৮। অসুস্থ্যতার কারণে বছরের প্রথম দিনেই প্রিয় কারো মনে কষ্ট দিয়েছিলাম। বছরের শুরুটা ভালো করে শুরু না করতে পারলেও মনের মধ্যে বরাবরের মতো ই অনেক পজিটিভ এনার্জি পরিপূর্ণ করে রেখেছিলাম। ইউটিউব চ্যানেল আর আমার ওয়েবসাইট নিয়ে ভালো প্ল্যান ছিল। কিন্তু ঠিক জানুয়ারি মাসের কয়েক দিন যেতেই জীবনে শুরু হতে থাকে একের পর এক অনাকাঙ্খিত ঘটনা, যেগুলোতে আমি দুমড়ে মুচড়ে একাকার হতে থাকি। অনেকটা জ্ঞানহীনের দিন কাটাতে থাকি, বারবার আমার জীবনের পেছনের দিন গুলোর কথা ভাবতে থাকি, আর মানুষের সাথে অভিনয় করে দিন কাটাতে থাকি।

যদিও কয়েক মাস ধরে ভালো ইনকাম আসছিল, অন্তত এলোমেলো লাইফে এটা একটা সুসংবাদ ছিল, কিন্তু সেটাও শিগ্রহী বন্ধ হবার ছিল। শত্রুতার বসে আর নিজের কিছু বোকামিতে আমার ওয়েবসাইট আর ইউটিউব চ্যানেল এর মনিটাইজেশন অফ হয়ে যায়। আমাকে ব্র্যান্ড নাম পরিবর্তন করতে হয়। যদিও লাইফে এমনিতেই কম কিছু চলছিল না, তারপরে এটাই হওয়া শুধু বাকি ছিল, আর সেটা ঘটেও গেলো।

কি আর করার ইউটিউব চ্যানেল এ ৮০০০+ সাবস্ক্রাইবার ছিল আর প্রত্যেকদিন ১০০ করে নতুন সাবস্ক্রাইবার বাড়ছিল সেটা বাদ দিয়ে নতুন চ্যানেল আর নতুন নাম দিয়ে ওয়েবসাইট শুরু করতে হলো। নতুন সাইটে মনিটাইজেশন অন করতে যা করতে হলো তা তহ হলোই। এর ঝামেলার গুলোর সাথে কেটে গেলো আরো কিছু দামী সময়। এর মধ্যে শতবার টেক ব্লগ লিখতে এসেও লিখতে পারিনি। কয়েকবার জোর করে লিখেছিলাম।

২০১৮ এর প্রায় শেষের দিকে যন্ত্রণার মাত্রা আরো জেনো বেড়ে গেলো, আর দিন দিন জ্বালা অফুরন্ত সীমানায় চলে যাচ্ছিল হারেহারে টের পাচ্ছিলাম। যাই হোক, অবশেষে নিজেই নিজের নাটকের দর্শক হয়ে বসে বসে দেখছিলাম, কি আর করার? অবশেষে আবার ও মনে পজিটিভ কিছু এনার্জি চালু করলাম, ব্লগটা নিয়ে কাজ করতে থাকলাম। সবচাইতে বড় পাওয়া বললে, ওয়্যারবিডি ব্লগটাতে এখন ডেইলি ২০,০০০+ রিডার পাচ্ছি, নতুন করে স্বপ্ন দেখছি নিজের কাজ নিয়ে, নিজের ছোট টিম নিয়ে।

২০১৯ হঠাৎ করেই চলে আসলো, আর শুরু থেকেই আমার ব্যক্তিগত এই ব্লগ নিয়মিত লেখার ইচ্ছা ছিল, তাই শুরু ই করে দিলাম। অপরদিকে অবশ্যই ওয়্যারবিডিতে নিয়মিত কন্টেন্ট উপহার দেবো এবং ইউটিউব ভিডিও বানানোর দিকেও জোর দেবো চিন্তা রয়েছে। ইউটিউবটা মোটেও টাকার জন্য নয়, কেননা ইউটিউবে বাংলাদেশ থেকে মোটেও টাকা নেই, তবে ভিডিও বানাতে মজা লাগে। যদি ২০১৮টা ২০১৭ এর মত কাটাতে পারতাম তাহলে আজ ইউটিউবে হয়তো বা ১ লাখ+ সাবস্ক্রাইবার অর্জন করতাম।

যাই হোক, সময়কে আর দোষ দিতে চাইনা। সময়ের কি দোষ বলুন? আমি প্রাপ্ত বয়স্ক, এবং আমি নিজের সিদ্ধান্ত নিজেই নিয়েছি, মানে দোষ থাকলে আমারই রয়েছে, কাকে দোষী বানাবেন মিছিমিছি?

তো এই ছিল, ২০১৮। আবারো হাজারো নতুন আশা নিয়ে ২০১৯ শুরু করলাম। উদ্দেশ্য নিজের স্বপ্ন নিয়ে বাঁচার, পারফেক্ট হতে হবে না একটু ঠিক থাকলেই হবে।


Image Credit: Shutterstock

লেখকের সম্পর্কে

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে টেকব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

আমার জীবনের সবচাইতে বড় শিক্ষা, "আসলে আমরা কেউই কাউকে প্রকৃতপক্ষে চিনি না, হোক সেটা যতো কালেরই মেলামেশা, আর প্রকৃত ভালোবাসা হয়তো রয়েছে কিন্তু সেটা আমার জন্য নয়"

Add comment

TahMiD's Blog! Tech, Science Writer & Blogger

Tahmid Borhan

ইন্টারনেটে অধিকাংশ রিডার আমাকে টেকব্লগার এবং একজন টেকগীক হিসেবেই চেনেন। এছাড়াও আমি ইউটিউবে ভিডিও আপলোড করে থাকি, নতুন নতুন জিনিষ শিখতে এবং এক্সপ্লোর করতে ভালোবাসি, প্রচণ্ড মুভি দেখি ও গান শুনি, বিজ্ঞান চর্চা করতে ভালোবাসি।

আমার জীবনের সবচাইতে বড় শিক্ষা, "আসলে আমরা কেউই কাউকে প্রকৃতপক্ষে চিনি না, হোক সেটা যতো কালেরই মেলামেশা, আর প্রকৃত ভালোবাসা হয়তো রয়েছে কিন্তু সেটা আমার জন্য নয়"